লেটেস্ট খবরবিনোদনভাইরাললাইফ স্টাইলরেসিপি

Kar kache Koi Moner Katha: শিমুলকে মে;রে ফেলার চেষ্টা! পরাগের দ্বারা অ্যা;রেস্ট হলো দু;ষ্কৃ;তীরা! নয়া প্রোমোতে বিরাট চমক

Updated on:

Kar kache Koi Moner Katha: ইতিমধ্যে জি বাংলার (Zee Bangla) অত্যন্ত জনপ্রিয় একটি ধারাবাহিক হয়ে উঠেছে ‘কার কাছে কই মনের কথা (Kar kache Koi Moner Katha)‘। শুরু থেকে টিআরপি তালিকাতেও বেশ ভালো ফলাফল করলেও বর্তমানে অনেকটাই নিচের দিকে এই ধারাবাহিকের টিআরপি। যদিও জনপ্রিয়তার নিরিখে আজও শীর্ষে আছে এই মেগা। বাস্তব জীবনের প্রেক্ষাপট তুলে ধরায় আজও সকলের প্রিয় এই ধারাবাহিক। প্রথম থেকেই আর পাঁচটা ধারাবাহিকের থেকে এর গল্প ছিল ভিন্ন। পাঁচজন মেয়ের হার না মানার লড়াই নিয়েই শুরু হয়েছিল গল্প। যার মধ্যে মুখ্য চরিত্রে ছিলেন শিমুল ওরফে গল্পের নায়িকা।

WhatsApp Group Join Now
Telegram Group Join Now

ইদানিং ধারাবাহিকের (Kar kache Koi Moner Katha) প্রতিটি পর্বেই থাকছে একের পর এক চমক যার কারণে একটি পর্ব মিস করতে চাইছেন না দর্শকরা। ধারাবাহিকের সাম্প্রতিক টেলিকাস্ট হওয়া পর্বতে দেখা গিয়েছে, বহুদিন বাদে নিজের জীবনে একটু সুখ খুঁজে পেয়েছে শিমুল। পরাগ অসুস্থ হওয়ার পর তার সমস্ত দায়িত্ব কাঁধে তুলে নিয়েছে সে। পড়া তো নিজের ভুল বুঝতে পেরে শিমুলকে কাছে টেনে নিয়েছে। আবারও বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়েছে তারা। কিন্তু পলাশ এর কোনোটাই মন থেকে মেনে নিতে পারেনি। দিন দিন আরো বেশি প্রতিহিংসাপরায়ণ হয়ে উঠেছে সে।

আরও পড়ুন: WB Summer Holiday 2024: গরমের ছুটির ঘোষণা করলো রাজ্য সরকার, আরও বাড়ল ছুটি? দেখে নাও নতুন নোটিশ

ধারাবাহিকের বর্তমান প্লট অনুযায়ী, পরাগকে ধীরে ধীরে ভালবাসতে শুরু করেছে শিমুল। অন্যদিকে শিমুলকেও ভালোবেসে ফেলেছে সে। পরাগ ও শিমুলের এই দৃশ্যে বেজায় খুশি দর্শকরা। তবে পরাগ মনে মনে ঠিক করেছে শিমুলের জীবন থেকে চলে যাবে। শিমুলের অনুপস্থিত এসে বাড়ি থেকে বেরিয়ে গিয়েছে এবং তাকে হন্যে হয়ে খুঁজছে শিমুল। এমতাবস্থায় অনেকেই ভেবেছিল পড়াক চরিত্রটির ইতি ঘটবে এখানে এবং গল্পে এন্ট্রি নেবে অন্য কোনো নায়ক। দর্শকদের সেই ধারণাকে সম্পূর্ণ ভ্রান্ত প্রমাণ করেছে ধারাবাহিকের নতুন প্রোমো।

Kar kache Koi Moner Katha New Promo Video:

সম্প্রতি একটি প্রোমো প্রকাশ্যে এসেছে। যেখানে দেখা যাচ্ছে, শিমুল স্কুল থেকে পরীক্ষার খাতা নিয়ে বাড়ি ফেরার সময় দুইজন গুণ্ডা পিছন থেকে মুখ চিপে ধরে শিমুলের। দুষ্কৃতীদের মুখ গামছায় ঢাকা থাকায় তারা এই কাজ করেছে তা দেখতে পায় না শিমুল। এমন সময় শিমুলকে বাঁচাতে সেখানে উপস্থিত হয় পরাগ আর পুলিশ অফিসার অর্ণব।

শিমুল পরাগের কাছে চলে গেলে পরাগ অফিসার অনর্বকে জানায় গুন্ডাদের অ্যারেস্ট করতে। অন্যদিকে অফিসার লোকগুলির মুখ দেখার চেষ্টা করে। এমন ঘটনায় শিমুল আর পরাগ দুজনেই বেশ অবাক তাদের এত বড় ক্ষতি কে করতে চায় তা যেন কিছুতেই তাদের বোধগম্য হচ্ছে না। অন্যদিকে অফিসের অর্নবই বা কে তাও স্পষ্ট নয় শিমুলের কাছে। এখন গল্প কোন দিকে মোড় নেয় তা দেখতে চোখ রাখতে হবে জি বাংলার পর্দায়।

About Author
Neha Basu

বিগত প্রায় ২ বছর ডিজিটাল মিডিয়ার কাজের সঙ্গে যুক্ত। যে কোনো ধরনের জেনারেল নিউজ লেখায় পারদর্শী।

Leave a Comment