এবার পরাগকে ডিভোর্স দিয়ে, শতদ্রুর সাথে নতুন জীবন শুরু করবে শিমুল! প্রকাশ্যে দুর্ধর্ষ পর্ব

Kar Kache Koi Moner Kotha: জি বাংলার পর্দায় সদ্য সম্প্রচারিত হয়েছে একটি প্রোমো। জনপ্রিয় ধারাবাহিক “কার কাছে কই মনের কথা”(Kar Kache Koi Moner Kotha) সিরিয়ালে মুখ্য চরিত্র শিমুল।বাড়ির বড় বউ সে।বউ হওয়ার সব দায়িত্ব কর্তব্য পালন করছে সে।তবুও বর দেওরের মন সে পায় নি।তাদের চোখে সে খারাপ।একটুও শান্তি নেই শিমুলের জীবনে।

শিমুল সবাইকে নিয়ে একটা সুখের সংসার করতে চায়। কিন্তু সে ষড়যন্ত্রের শিকার হয় সে।শিমুলকে নিজের পথ থেকে সরিয়ে পরাগ চায় তার ছাত্রী প্রিয়াঙ্কার সাথে সংসার করতে।কিন্তু বোঝে না তার ছাত্রী সরকারি চাকরির লোভের জন্য তাকে সম্পর্কে জড়াচ্ছে। বার বার অপমানিত হতে হতে ক্লান্ত হয়ে পড়ে শিমুল। আর কত লড়াই করবে।তবে সে সিদ্ধান্ত নেয় এবার সে ভালো থাকবে। তারও অধিকার আছে ভালো থাকার।এবার সে শতদ্রুর সাথে ভালো থাকতে চায়।ডিভোর্স দিতে চায় পরাগকে।

প্রমোতে (Kar Kache Koi Moner Kotha) দেখানো হচ্ছে শিমুল প্রতীক্ষাকে রান্নাঘরের সব বুঝিয়ে দিচ্ছে।তার শাশুড়ি মা কিরকম চা পছন্দ করেন সেইসব।শাশুড়ি মা বলেন চাকরি করা বৌমা হলো প্রতীক্ষা।সে কি এসব পারবে নাকি সামলাতে।উত্তরে শিমুল বলে এবার প্রতীক্ষাকে সামলাতে হবে।কারণ সংসার থেকে এবার ছুটি নেবে শিমুল।সে এবার নিজের জন্য বাঁচবে।তার জীবনে প্রকৃত বন্ধুর সাথেই সে থাকতে চায়।তখনি শতদ্রু আসে।শিমুলের ইঙ্গিত থেকে বোঝা যায় শিমুল শতদ্রুর সাথেই সব ঠিক করতে চায়।

তবে শিমুলের এই সিদ্ধান্তে খুশী তার দর্শকরা।দর্শকরা চায় এবার শিমুল আর শতদ্রুকে একসাথে দেখতে।তাই দর্শক এই প্রোমো দেখে খুব খুশী।শেষ পর্যন্ত শিমুল সত্যিটা বুঝতে পেরেছে।তার আসল সুখ শতদ্রুর সাথে।যদিও শাশুড়ি মধুবালা খুব ভেঙ্গে পড়েছেন কান্নায়।তিনি পুরোপুরি নির্ভরশীল ছিলেন তার আদরের বৌমার ওপর।তাই বৌমার সিদ্ধান্তে ভেঙ্গে পড়েন তিনি।কি হবে শেষ পর্যন্ত শিমুলের জীবনে?শিমুল কি পারবে সব বাঁধন ছেড়ে বেরিয়ে নিজের জন্য বাঁচতে? নতুন করে সবটা শুরু করতে?

আরও পড়ুন: Icche Putul: মেঘকে বাঁচাতে কাছাকাছি, জিষ্ণুর হাত ধরে নতুন জীবন শুরু গিনির! ফাঁস ‘ইচ্ছে পুতুল’র আগাম পর্ব

 

Leave a Comment