লেটেস্ট খবরবিনোদনভাইরাললাইফ স্টাইলরেসিপি

আর ফিরবো না কোনোদিন, শতদ্রুর সাথে সম্পর্ক ছিন্ন করল শিমুল! প্রকাশ্যে চোখে জল আনা দুর্ধর্ষ পর্ব

Published on:

WhatsApp Group Join Now

Kar kache koi moner kotha: জি বাংলার (Zee Bangla) জনপ্রিয় ধারাবাহিক “কার কাছে কই মনের কথা”(Kar kache koi moner kotha)। বর্তমান কাহিনী অনুযায়ী শিমুল (Shimul) সিদ্ধান্ত নেয় শতদ্রুর (Shotodru) সাথে নতুন জীবন নতুন ভাবে শুরু করবে সে।কিন্তু যখনই জীবনটাকে সুন্দর করে গুছিয়ে নিতে চেয়েছে শিমুল তখন কোনো না কোনো সমস্যার ঠিক সমুক্ষীন হতে হয়েছে তাকে।

WhatsApp Group Join Now

এবারও অন্যথা হলো না। বাপের বাড়ি থাকার সময় অনেক অবহেলা সহ্য করেছে সে।পরাগের(Porag) সাথে বিয়ে হয়ে আসার পর থেকেও সহ্য করেছে অনেক যন্ত্রণা।বরের ভালোবাসা সে পায় নি।উল্টে অবহেলা মানসিক এবং শারীরিক নির্যাতনের শিকার হয়ে হয় তাকে।শতদ্রুর সাথে নতুন করে সব শুরু করার স্বপ্ন দেখলেও শতদ্রুর মা ভালো চোখে মোটেই দেখেন না শিমুলকে।তাই শিমুল আর শতুদ্রুর সম্পর্ক কিছুতেই মেনে নিতে পারেন না। তিনি চান শিমুল যেনো শতদ্রুর জীবন থেকে চলে যায়।

শিমুল সব শুনে মনস্থির করে আর কোনরকম কষ্ট সহ্য সে করবে না।তাই সে আর কখনো শতদ্রুর কাছে ফিরবে না।শতদ্রু অনেক ক্ষমা চায়।কিন্তু শিমুল এক জেদ ধরে ।তখন শতদ্রু রেগে যায়।বলে এবার বুঝেছে কেনো সে পরাগকে ডিভোর্স দিচ্ছে না।এবার আর ফিরবে না শতদ্রু শিমুলের জীবনে(Kar kache koi moner kotha)

এদিকে বাড়ি ফিরে এসে শিমুল পরাগকে ডিভোর্সের পিটিশন সই করার কথা বলে।শাশুড়ি মধুবালা অনেক চেষ্টা করেন সম্পর্ক টা যাতে না ভেঙে যায় তার জন্য।কিন্তু কি হবে শেষ পর্যন্ত।আগামী পর্বগুলো তার জন্য দেখতে হবে(Kar kache koi moner kotha)

শতদ্রুর মা সবার সামনে শিমুলকে চূড়ান্ত অপমান করে।এসব কিছু মেনে নিতে পারে না আত্মসম্মান বজায়কারী শিমুল।নিজের তেমন উপার্জন নেই তার।পরজীবী হয়ে বেঁচে থাকার ইছেও নেই।পুনরায় আবার শ্বশুর বাড়ি গিয়ে সেই অশান্তির ঝামেলা পোহাতে আর রাজি নয়।তাই মায়ের ব্যবহারের জন্য ক্ষমা চাইলেও আর কিছুতেই নিজের জীবনের সাথে শতদ্রুর নাম জড়াবে না বলেই মনস্থির করে সে।

আরও পড়ুন: Sourav Ganguly: লন্ডনে নতুন চাকরি পেলেন সৌরভ-কন্যা সানা, খুশির খবর দিলেন সৌরভ গাঙ্গুলী

About Author
Adhrit Roy

বিগত প্রায় চার বছর ধরে ডিজিটাল মিডিয়ায় কাজের সঙ্গে যুক্ত। যেকোনো ধরণের জেনারেল নিউজ লেখায় পারদর্শী।

Leave a Comment