Monami Ghosh: বাংলায় শ্লোক উন্মুক্ত পিঠে, বাংলার মেয়ে মনামী গায়ে জড়ালেন নকশী কাঁথাই! ভাইরাল ছবি

WhatsApp Channel Join Now
Google News Follow

Monami Ghosh: এবারে বাংলার ফিল্ম ফেয়ার এওয়ার্ড অনুষ্ঠানে সকলের নজর কারলেন মনামী ঘোষ। সেই সঙ্গে নজর কেড়েছেন দর্শকদেরও। মনামি ঘোষ বরাবরই তার সাজ পোশাক নিয়ে সকলের চর্চায় থাকেন। তাঁর সাজ সবসময় ভীষণ অন্যরকম এবং আপ টু ডেট। তিনি যেমন ওয়েস্টার্ন ড্রেস পড়তে ভালোবাসেন সেইসঙ্গে বাঙ্গালীদের সাজ কেউ ভীষণভাবে প্রাধান্য দেন।

অন্য সকল সেলিব্রিটিরা যখন নিজেদেরকে ওয়েস্টার্ন ড্রেসে সাজিয়ে তুলতে পছন্দ করেন। তখন মনামী ঘোষ নিজেকে বাঙালি সাজে সাজিয়ে তুলতেই বেশি স্বাচ্ছন্দ বোধ করেন (Monami Ghosh)। এবারেও মনামি সকলের দৃষ্টি আকর্ষণ করলেন। প্রাচ্য ও পাশ্চাত্য যেন মিলেমিশে একাকার হয়ে গেছে তার সাজ পোশাকে। এবারের ফিল্মফেয়ার অ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠানে ব্ল্যাক লেডি নিয়ে বাড়ি গেলেন অনেক তারকাই কিন্তু লাইন লাইটে রইলেন বাংলার মেয়ে মনামি ঘোষ। মনামী তাঁর গাউন বানালেন নকশী কাঁথা দিয়ে।

সাদা লাল রঙের পোশাক, সঙ্গে বাংলার নকশী কাঁথা। তিনি বাংলার সঙ্গে মিলিয়ে দিয়েছেন পাশ্চাত্যকে। আর তার এই পোশাক নিয়ে হলো তুমুল আলোচনা (Monami Ghosh)। তার এই সুন্দর পোশাক পড়া ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় আপলোড হতেই বাহবায় ছেয়ে গেছে কমেন্ট সেকশন। তার এই সুন্দর নকশি কথা ড্রেসের সাথে মানানসই লাল ফিতেদিয়ে কলাবিনুনি করা যা দেখতে বেশ চমৎকার লাগছে। এ ভাবেই সুন্দর সেজে গুঁজে অনুষ্ঠানে হাজির হয়েছিলেন অভিনেত্রী।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Monami Ghosh (@monami_ghosh)

অভিনেত্রী শেষ মূহুর্ত্তের ছবি পোস্ট করলেন।আর সাথে লিখলেন, “লাস্ট মিনিট স্টিচিং আমার নকশী কাঁথার।” তাঁর কথায়, “এটা নকশী কাঁথা যেটাকে ওয়েস্টার্ন স্টাইলে বানানো। একদম বাংলার সংস্কৃতি। তাঁর সঙ্গে দেখতেই পাচ্ছ, একটা বিনুনি বাঁধা।” তবে এখানেই শেষ না অভিনেত্রী পড়েছিলেন লাল সাদা গাউন আর তার উন্মুক্ত পিঠে লিখেছিলেন বাংলা শ্লোক যা সকলের নজর কেড়েছে। যদিও এমন ভাবনা এর আগে কেউ ভাবে নি। তার এই নতুন পোশাক মন জয় করেছে অনেকেরই (Monami Ghosh)। কেউ বলছে, নিজেকে সুন্দর ভাবে সাজানোটা শুধু আর্ট না, বরং নিজের মাটির সঙ্গে পরিচয় রাখাটা আরও ভাল আর্ট। নকশী কাঁথাকে যে তুমি এই জায়গায় নিয়ে গেলে এটাই তো দারুণ।

কেউ এবার তার ছোট বেলার স্মৃতি চারণ করে বলছেন তোমার ওই কলা বিনুনি দেখে ছোট বেলার কথা মনে পরে গেলো। তোমার চুল বাধা দেখে আমি ভীষণ খুশি। আবার কেউ বলছেন, শেষ দুবছর তুমি অনবদ্য ছিলে। এবার তো আরও, ভীষণ সুন্দর ভাবনা চিন্তা। এমন ভাবনা আর কারও আসে না। মনামি ঘোষ যে নিজেকে মনে প্রাণে বাঙালি মেয়ে বলেই মনে করেন তা তার সাজ পোশাক দেখলে স্পষ্টই বোঝা যায়।

আরও পড়ুন: Kanchan Sreemoyee: ‘সব শুকিয়ে গেছে’, তৃতীয়বার বিয়ের পরেই এমন মন্তব্য কেন করলেন কাঞ্চন?

Leave a Comment