লেটেস্ট খবরবিনোদনভাইরাললাইফ স্টাইলরেসিপি

জোর করে শারীরিক সম্পর্কের চেষ্টায় বর পরাগ! আবারও অত্যাচারের শিকার শিমুল, প্রকাশ্যে দুর্ধর্ষ পর্ব

Published on:

জি বাংলার একটি অত্যন্ত জনপ্রিয় ধারাবাহিক হল কার কাছে কই মনের কথা। একজন মেয়ের বিয়ে হয়ে শ্বশুর বাড়ি যাওয়ার পর স্বামী দেওর এবং শাশুড়ির কাছে কিভাবে অপমানিত এবং অসম্মানিত হতে হয় তারই একটি অন্যরূপ তুলে ধরা হয়েছে এই ধারাবাহিকের মাধ্যমে। এই ধারাবাইকের মুখ্য ভূমিকায় অভিনয় করছে অভিনেত্রী মানালি দে। ধারাবাইকের শুরুতে ধারাবাহিকটি চর্চার মুখে পড়লেও আপাতত শিমুলের প্রতিবাদী রূপ দর্শকের বেশ পছন্দ হয়েছে।

WhatsApp Group Join Now
Telegram Group Join Now

আর এখন গল্পের মোড় যেদিকে ঘুরছে তাতে দেখা গেছে শিমুলের শাশুড়ি তার বৌমার পক্ষ নিয়ে কথা বলছে। ধারাবাহিকের শেষ পর্বে দেখা গেছে শিমুল এবং তার বান্ধবীদের সঙ্গে ছাদে ঘুড়ি ওড়াতে ব্যাস্ত মধুবালা দেবী। শিমুলের শাশুড়ির অত ভালো ঘুড়ি ওড়ানো দেখে শিমুল তাকে জড়িয়ে ধরে বলে তুমি এত ভালো ঘুড়ি উড়াতে পারো মা। তারপর হঠাৎই শিমুল তার শাশুড়িকে বলে “তুমি করে বললাম বলে রাগ করনি তো ?”

Kar Kache Koi Moner Kotha
Kar Kache Koi Moner Kotha

তখন মধুবালা দেবী নিজে থেকেই শিমুলকে তুমি করে ডাকার অনুমতি দিয়েছেন। মা মেয়ের মধ্যে যে এই মিষ্টি সম্পর্ক গড়ে উঠেছে তা দর্শকের বেশ পছন্দ হয়েছে। তারপর রাতে পুতুলকে চুল বেরিয়ে যায় শিমুল তখন মধুবালা দেবীর শিমুলকে বলে রাতে যেন তার স্বামীর ঘরে ফিরে যায়। তখন প্রতিনিয়ত পাশবিক অত্যাচারের কথা শিমূল তার শাশুড়িকে বললে, তখন তার শাশুড়ি বলে শিমুলই পারবে পড়াগকে শুধরে দিতে। তাই মধুবালা দেবীর কথায় শিমুল পড়াগকে শায়েস্তা করার সিদ্ধান্ত নেয়।

Kar Kache Koi Moner Katha New Episode

তারপর শিমুল তার ঘরে যাওয়ার পর পরাগ তার ওপর আবার অসভ্য আচরণ করতে থাকে। তাকে বিছানায় যাবার জন্য বলে তাকে ধাক্কা মেরে দেয়। তারপর খাটের কোনায় শিমুলের কেটে যায়। এত অত্যাচার সহ্য করেও কি শিমুল তার শাশুড়ির কথায় তার স্বামীকে শুধরে দিতে পারবে? গল্পের মোর কোন দিক নেবে? দেখতে হলে অবশ্যই চোখ রাখতে হবে টিভির পর্দায়।

আরও পড়ুন: ‘জল থই থই ভালবাসা’র অপরাজিতার মেয়ে তোতা আসলে কে? রইল আসল পরিচয়

About Author
Adhrit Roy

বিগত প্রায় চার বছর ধরে ডিজিটাল মিডিয়ায় কাজের সঙ্গে যুক্ত। যেকোনো ধরণের জেনারেল নিউজ লেখায় পারদর্শী।