লেটেস্ট খবরবিনোদনভাইরাললাইফ স্টাইলরেসিপি

Ram Navami 2024: অন্ধকার গর্ভগৃহে রামলালের কপালে তিলক আঁকলো সূর্যরশ্মি! অলৌকিক ঘটনার সাক্ষী থাকল গোটা বিশ্ব

Published on:

Ram Navami 2024: আজ রামনবমী। রামের জন্মতিথি হিসাবে এই দিনটি পালন করা হয়। রামলালার মূর্তি প্রতিষ্ঠার পর এই প্রথম বছর অযোধ্যায় রামনবমী (Ram Navami) অনুষ্ঠিত হয়েছে। ভক্তদের ঢল নেমেছিল রাম মন্দির চত্বরে। অন্যদিকে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে অনুষ্ঠিত হয়েছে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা। সকল ভক্ত আশা করেছিলেন এই বছর কোনো আশ্চর্য ঘটনার সাক্ষী থাকবে গোটা বিশ্ব।

WhatsApp Group Join Now
Telegram Group Join Now
Ram Navami
Ram Navami

আর সেই প্রত্যাশা মতোই অযোধ্যার রাম মন্দিরের এক আশ্চর্য ঘটনার সাক্ষী থাকল গোটা বিশ্ব। আজ দুপুর ঠিক ১২টায় রামলালার কপালে সূর্যের আলো এসে এঁকে দিয়েছে সূর্য তিলক। বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সাহায্যেই এই কাজ সম্ভব হয়েছে। সূত্রের খবর, প্রতি বছর রাম নবমীর দুপুরে সূর্যের আলোর রশ্মি এসে পড়বে রামলালার মূর্তির কপালে। আর এই কাজ সম্ভব হয়েছে বহু বিজ্ঞানীদের অক্লান্ত পরিশ্রমে।

Ram Navami 2024
Ram Navami 2024

তবে প্রতি বছর যেহেতু একই দিনে রামনবমী পড়ে না সেক্ষেত্রে সূর্যের অবস্থান জানতে গণনা চলবে এবং সেই গণনার উপর ভিত্তি করেই বসানো হবে আয়নাকে। বিজ্ঞানীদের মতে, সূর্য রশ্মিকে রামলালার কপালে প্রতিফলিত করার পদ্ধতি, খুব সহজ ছিল না। দীর্ঘদিনের গবেষণার পর এই কাজ সফল হয়েছে। উল্লেখ্য, রাম মন্দির উদ্বোধনের পর থেকে আজকের এই বিশেষ দিনে সকল দেশবাসীর নজর ছিল অযোধ্যার দিকে। আর এইদিনই ধর্ম ও বিজ্ঞানের এমন মেলবন্ধনের সাক্ষী থাকল সকলে।

Ram Navami 2024
Ram Navami 2024

দুপুর ১২.০১ মিনিটে রামলালার কপালে সূর্য অভিষেক শুরু হয় যা চলে পাঁচ মিনিট ধরে চলে। আইআইটি রুরকির বিজ্ঞানীরা এই সূর্য তিলকের জন্য একটি বিশেষ অপটো-মেকানিক্যাল সিস্টেম তৈরি করেছেন। তারই মাধ্যমে সম্পন্ন হয়েছে এই তিলক এই অনুষ্ঠান। জানা গিয়েছে, মন্দিরের ওপরের তলায় স্থাপন করা হয়েছে যন্ত্রটিকরে। প্রথমে সূর্য রশ্মি আয়নায় পড়বে এবং পরবর্তীতে তা ঠিক ৯০ ডিগ্রি কোণে প্রতিফলিত হয়ে একটি পাইপের মাধ্যমে রামলালার কপালে এসে পড়বে। রামলালার কপালে আঁকা সূর্যরশ্মির তিলকের দৈর্ঘ্য ৭৫ মিলিমিটার।

Ram Navami 2024
Ram Navami 2024

রাম নবমীকে (Ram Navami) কেন্দ্র করে আজ জনজোয়ারে ভাসছে অযোধ্যা। সঙ্গে সূর্য তিলকের মাহাত্ম্য দেখতেও দূর দূরান্ত থেকেও ছুটে এসেছে বহু ভক্ত। একশোর ওপর এলইডি স্ক্রিন লাগানো হয়েছে অযোধ্যায়। সেখানেও ভক্তরা জড়ো হয়ে এই অনুষ্ঠানের সাক্ষী থেকেছেন। প্রসঙ্গত রামচন্দ্র সূর্যবংশে জন্ম নিয়েছিলেন এমনটাই বিশ্বাস রয়েছে হিন্দুদের মধ্যে। শঙ্খের আওয়াজ, বৈদিক মন্ত্র উচ্চারণ, আরতির মাধ্যমে সূর্য তিলকের অনুষ্ঠানটি সুসম্পন্ন হয়েছে।

আরও পড়ুন: WB Summer Holiday 2024: গরমের ছুটির ঘোষণা করলো রাজ্য সরকার, আরও বাড়ল ছুটি? দেখে নাও নতুন নোটিশ

About Author
Adhrit Roy

বিগত প্রায় চার বছর ধরে ডিজিটাল মিডিয়ায় কাজের সঙ্গে যুক্ত। যেকোনো ধরণের জেনারেল নিউজ লেখায় পারদর্শী।

Leave a Comment