ফের বিয়ের পিড়িতে বসতে চলেছে শিমুল! পরাগকে ডিভোর্স দিয়ে শতদ্রুকে বিয়ে করল শিমুল! প্রকাশ্যে দুর্ধর্ষ পর্ব

WhatsApp Channel Join Now
Google News Follow

বর্তমানে যেকোনো ধারাবাহিকে একাধিক বিয়ে, পরকীয়া যেনো ট্রেন্ডিং বিষয়। এইসব থেকে বেশি এসে অন্য ধরার গল্প হচ্ছে জি বাংলার কার কাছে কই মনের কথা ধারাবাহিক। নারীকেন্দ্রিক এই গল্প দর্শকদের মনে বেশ জায়গা করে নিয়েছে তা টি আর পি এর তালিকা দেখলেই বোঝা যায়।

সম্প্রতি গল্পে দেখানো হয়েছে শিমুলের শাশুড়ি বাহিরে ঘুরতে গেছে সংসারের সব দায়িত্ব তার ওপর দিয়ে। শাশুড়ির এই সমস্ত ঘুরতে যাওয়ার ব্যবস্থা করে দিয়েছে শিমুল নিজে। মধুবালা দেবীর এই ঘুরতে যাওয়া নিয়ে আপত্তি ছিলো তার দুই ছেলে পরাগ – পলাশের। কিন্তু শেষ পর্যন্ত তাদের এই আপত্তি ধোপে টেকে নি।

শাশুড়ির সঙ্গে প্রথম থেকে মনোমালিন্য হলেও এই ঘুরতে যাওয়ার সময় শিমুল শাশুড়ি কিছুটা কাছে আসতে পেরেছিল। তবে সেই বিষয় ভালো ভাবে মেনে নিতে পারেনি শিমুলের হবু জা প্রতীক্ষা। তাই সে শিমুলের বিরুদ্ধে চক্রান্ত শুরু করে পরাগ – পলাশের হাত ধরে।

গল্পে দেখানো হয়েছে বিয়ে আগে শিমুলের সঙ্গে শতদ্রু নামে একজনের সঙ্গে তার সম্পর্ক ছিল।কিন্তু সেই সম্পর্ক টেকে নি। আর এই কথা কোনো প্রকারে জানতে পারে পলাশ। তারপরই হবু স্ত্রী সঙ্গে পরিকল্পনা করে ফাঁকা বাড়িতে শতদ্রুকে পাঠায়। শতদ্রুর বোনের বিয়ের নেমন্তন করার জন্য। সেখানে শতদ্রুকে জোর করে মিষ্টি খাই দেয় শিমুল সেই সময় পরাগ, পলাশ, প্রতীক্ষা এসে পরে ঝেমেলা সৃষ্টি করে।

এরপরই আগামী পর্বে দেখানো হয়ে শিমুল এই অপমান মেনে নিতে না পেরে পরাগকে ডিভোর্স দিয়ে। প্রাক্তন প্রেমিক শতদ্রুকে বিয়ে করে। তবে এই ভিডিও জি বাংলার পক্ষ থেকে সম্প্রচারিত হয় নি। বরং ইউটিউবের চ্যানেল থেকে এই ভিডিও প্রচারিত হয়েছে। এরপর কোন দিকে এগোয় সেটা জানতে হলে দেখতে হবে কার কাছে কই মনের কথা ধারাবাহিক।

আরও পড়ুন: বাস্তবতার নাম করে খারাপ প্রভাব ফেলছে সমাজের উপর! ‘কার কাছে কই মনের কথা’ ধারাবাহিক দেখে ক্ষুব্ধ হচ্ছেন দর্শকরা