লেটেস্ট খবরবিনোদনভাইরাললাইফ স্টাইলরেসিপি

Morning School: পশ্চিমবঙ্গে মর্নিং স্কুল শুরু হবে কি? অভিভাবক মহলে জল্পনা শুরু

Published on:

WhatsApp Group Join Now

Morning School: গরমের ছুটি শেষ হয়ে স্কুল খুলেছে। কিন্তু যেভাবে গরম বাড়ছে তাতে আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন আবহাওয়া বিশেষজ্ঞরা। যেকোনো মুহূর্তে হিটস্ট্রোকে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হতে পারে মানুষের। আবারো আগের মতন সকাল দশটার পর বাইরে বের হতে নিষেধ করা হয়েছে। পরিস্থিতি হাতের বাইরে চলে যেতে পারে। এদিকে সামনেই রয়েছে ছাত্র-ছাত্রীদের পরীক্ষা। স্কুল খুলে পঠন পাঠন শুরু না হলে কিভাবে তারা পরীক্ষা দেবে। সবেমাত্র স্কুল খুলেছে এরপরে তো আর গরমের ছুটি দেওয়া যায় না।

সকালে স্কুল:

তাই অভিভাবক থেকে শিক্ষক মহলে প্রচন্ড গরমের জন্য মর্নিং স্কুল করবার দাবি জানানো হয়েছে। গত দশই জন বিদ্যালয় খুলেছে। অবশ্য তিন তারিখ থেকেই স্কুলে আসতে আরম্ভ করে দিয়েছিলেন শিক্ষক শিক্ষিকারা। এদিকে দীর্ঘদিন স্কুল বন্ধ বাড়িতে থেকে ঠিকমতো পড়াশোনা হচ্ছে না পড়ুয়াদের। স্কুল খুলতে অনেকখানি স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলেন অভিভাবকরা।

আরও পড়ুন: Shubho Bibaho Serial: একাধিক প্রেমে ক্ষতি নেই, তাহলে দ্বিতীয় বিয়েতে সমস্যা কোথায়? সমাজকে প্রশ্ন ‘শুভ বিবাহ’র নায়ক হানি বাফনার

তবে আবহাওয়া দপ্তর বলছে দক্ষিণবঙ্গে বর্ষা আসতে এখনো অনেক দেরি। আদৌ দক্ষিণে মৌসুমী বায়ু আসবে কিনা তা নিয়ে রয়েছে ঘোর অনিশ্চয়তা। এই অবস্থায় বাড়ছে গরম। রোদের তাপ অসহনীয় হয়ে উঠেছে। ছাত্রছাত্রীরা যদি বেকায়দায় পড়েন তবে তাদের পড়াশোনা লাটে উঠবে। এই প্রচন্ড গরম থেকে নিস্তার পেতে ছুটি নয় বরং সকালে স্কুল করা হোক।
এমনটাই দাবি জানাচ্ছেন অভিভাবকরা।

গরমের ছুটি:

শিক্ষক শিক্ষিকারাও বলছেন গরমের ছুটি দেওয়ার দরকার নেই তবে সকালবেলা স্কুল হোক। আবার অনেকে বলছেন কিছুদিনের জন্য বাড়িয়ে দেওয়া হোক গরমের ছুটি। এদিকে দক্ষিণের তুলনায় উত্তরের অবস্থা সম্পূর্ণ বিপরীত। সেখানে প্রতিদিন দফায় দফায় হচ্ছে বৃষ্টি আবার কোথাও কোথাও শিলাবৃষ্টি হচ্ছে। ফলে উত্তরের স্কুলগুলি খোলা থাকতে নেই কোন বাধা। কিন্তু বৃষ্টি আসবে কবে কি বলছে হাওয়া অফিস।

WhatsApp Group Join Now
কবে আসবে বৃষ্টি:

আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর জানাচ্ছে ১৫ই জুন থেকে দক্ষিণবঙ্গের সব জেলায় দক্ষিণ-পশ্চিম মৌসুমি বায়ু প্রবেশ করবে। বৃষ্টি আসবে ঠান্ডা পড়বে। ছাত্রছাত্রীরা প্রাণ ভরে ক্লাস করতে পারবে। এদিকে দক্ষিণবঙ্গের পশ্চিম দিকের কিছু জেলা যেমন বাঁকুড়া পুরুলিয়া পশ্চিম বর্ধমান পশ্চিম মেদিনীপুরে তাপমাত্রা পৌঁছে গিয়েছে ৪০ ডিগ্রির উপরে। অসুস্থ হয়ে অনেক পড়ুয়ার হাসপাতালে ভর্তি খবর শোনা গিয়েছে। এদিকে এই গরম নিয়ে যথেষ্ট উদ্বিগ্ন শিক্ষা দপ্তর। বৃষ্টির দিকে চাতক পাখির মতন চেয়ে বসে তারা। আর তাতেই ঝুলে রয়েছে ছাত্র-ছাত্রীদের গরমের ছুটির ভাগ্য।

About Author
Adhrit Roy

বিগত প্রায় চার বছর ধরে ডিজিটাল মিডিয়ায় কাজের সঙ্গে যুক্ত। যেকোনো ধরণের জেনারেল নিউজ লেখায় পারদর্শী।