লেটেস্ট খবরবিনোদনভাইরাললাইফ স্টাইলরেসিপি

Sandhya Roy: হঠাৎই গুরুতর অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হলেন জনপ্রিয় অভিনেত্রী সন্ধ্যা রায়

Published on:

WhatsApp Group Join Now

Sandhya Roy: ফের গুরুতর অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হলেন অভিনেত্রী সন্ধ্যা রায় (Sandhya Roy)। বুকের ব্যথা নিয়ে দক্ষিণ কলকাতার এক নামি৭৯ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে 80 বছর বয়সী অভিনেত্রীকে। ২৪ ঘন্টা অভিনেত্রীকে যিনি দেখভাল করেন তিনি বলেন হঠাৎই বুকে ব্যথায় শুরু হয়, তারপর এই হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। এখনো চিকিৎসা চলছে, হঠাৎ কি থেকে ব্যথা হয়েছে তা এখনো স্পষ্ট ভাবে বোঝা যাচ্ছে না। আপাতত হাসপাতালে কয়েকদিন চিকিৎসকদের চিকিৎসায় থাকবেন। এর আগেও করোনা আক্রান্ত হয়ে দীর্ঘদিন হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন তিনি। ২০২২ সালের জুলাই মাসে স্বামী তরুণ মজুমদারকে হারান অভিনেত্রী।

বাংলা সিনেমায় দীর্ঘ ২৫ ধরে দাপটের সঙ্গে অভিনয় করেছেন সন্ধ্যা রায়। সাদাকালো দিয়ে শুরু হলে পরবর্তী সময়ে রঙিন টেলিভিশনের পর্দাতেও কাজ করেছেন। তারপর ১৯৬৭ সালে বিখ্যাত পরিচালক তরুণ মজুমদারের সঙ্গে সাত পাকে বাঁধা পড়েন। যদিও দীর্ঘ কয়েক বছর তারা আলাদা ছিলেন তারা। আইনিভাবে ডিভোর্স না হলেও একসঙ্গে থাকতে না তারা। সন্ধ্যা রায়ের অভিনয় যাত্রা শুরু হয় মাত্র ১৬ বছর বয়সে রুপোলি পর্দার হাত ধরে। তাঁর প্রথম ছবি ‘মামলার ফল’।

আরও পড়ুন: সিগন্যালেই বিপদ, কাঞ্চনজঙ্ঘার করুণ পরিণতি সম্পর্কে মুখ খুলল পূর্ব রেল

সন্ধ্যা রায়ের অভিনীত ছবি গুলির মধ্যে অন্যতম চর্চিত ছবি হল সত্যজিৎ রায়ের ‘অশনি সংকেত’ এবং তরুণ মজুমদারের ‘ঠগিনি’। অন্যদিকে যেমন ‘বাবা তারকনাথ’ কিংবা ‘দাদার কীর্তি’ , ‘ছোট বউ’। ‘মায়া মৃগয়া’, ‘কঠিন মায়া’, ‘বন্ধন’, ‘পলাতক’, ‘তিন অধ্যায়’, ‘আলোর পিপাসা’, ‘ফুলেশ্বরী’, ‘সংসার সীমান্তে’, ‘নিমন্ত্রণ’ এর মধ্যে একাধিক ভালো ভালো ছবি দর্শকের উপহার দিয়েছেন অভিনেত্রী। জীবনের অল্প কিছু সময় রাজনৈতিক ময়দানেও কাটিয়েছেন। ২০১৪ সালে তৃণমূল কংগ্রেসের হয়ে মেদিনীপুরের ভোটে দাঁড়িয়ে সংসাদ নির্বাচিত হয়েছিলেন।

About Author
Ankana Chowdhury

নমস্কার আমার নাম অঙ্কনা চৌধুরী। আমি বিগত দু'বছর ধরে ডিজিটাল মিডিয়াতে কাজের সঙ্গে যুক্ত রয়েছি। এই দু বছরে আমি বিভিন্ন ধরনের বিষয়ের উপরে জেনারেল নিউজ লিখেছি। এবং বর্তমানে আমি অনেকটাই কাজ শিখে এই জেনারেল নিউজ লেখায় নিজেকে সাবলীল করে তুলেছি। এই কয়েক বছরে আমার অভিজ্ঞতা ভীষণই ভালো।