Albert Kaboo: শিশুকন্যাকে হারালেন সারেগামাপা-র কাবো! গায়কের পোস্টে চোখ ভিজল নেটপাড়ার

WhatsApp Channel Join Now
Google News Follow

সা রে গা মা পা তে বিজয়ী হতে না পারলেও, অগুণতি মানুষের ভালোবাসা পেয়েছেন তিনি। দর্শকদের মন জয় করে নিয়েছিলেন অ্যালবার্ট কাবো লেপচা।এবারের সারেগামাপার প্রি-ফিনালে এপিসোডে কাবোর সমর্থনে হাজির ছিলেন তাঁর সুন্দরী স্ত্রী এবং দুধের শিশু। কাবোর সঙ্গে সঙ্গে তাঁরাও হয়ে গিয়েছিলেন ইন্টারনেট সেনসেশন। তবে একটা পোস্ট সকলের মন ভেঙে দিল। সামাজিক মাধ্যমে কাবো জানালেন, সকলকে ছেড়ে চলে গিয়েছে সেই খুদে। খালি হয়েছে বাবা-মায়ের কোল।

কাবো সোশ্যাল মিডিয়ায় মেয়ের সঙ্গে একটি ছবি শেয়ার করে লিখলেন, ‘গল্পটা শেষ হলেও যাত্রাটা নয়। তুমি আমাদের জীবনের সবচেয়ে মিষ্টি গানটা গেয়েছো। আমাদের ধ্রুবতারা হয়ে থেকো তুমি। আর আমাদের পথ দেখিও। ওখানে ভালো থেকো। তোমার আত্মার শান্তি কামনা করি এভিলিন লেপচা। শো শেষ হওয়ার পর এক সাক্ষাৎকারে কাবোকে বলতে শোনা গিয়েছিল, তিনি যখন আট মাস শো নিয়ে কলকাতায় ছিলেন তখন তাঁদের একরত্তি মেয়েকে একাই সামলেছিলেন স্ত্রী পূজা।

তার এই পোস্টে অনেকেই মন্তব্য করেছেন। শোক প্রকাশ করেছেন। একজন লিখেছেন, ‘জানি না কী লেখা উচিত। এই শোকের স্বান্তনা হয় না। ভগবান তোমায় শক্তি দিক।’ আরেকজন লিখলেন, ‘হে ইশ্বর। তুমি এত নিষ্ঠুর কেন। এত ছোট্ট একটা প্রাণকে কেন কেড়ে নিলে।’ তৃতীয়জনের মন্তব্য, ‘তোমাদের কোল আলো আবার সে ফিরে আসবে। সংগীতই তোমাকে শক্তি জোগাবে এই কঠিন সময়ে। ভগবানে বিশ্বাস হারিও না।’

প্রসঙ্গত, ২০২২-২৩-এর সারেগামাপা বাংলার রানার্স আপ হন কাবো। শো পদ্মপলাশ জিতলেও দর্শকমন জয় করে নিয়েছিলেন এই পাহাড়ি ছেলেটি নিয়ে গায়িকি দিয়ে। অগুণতি মহিলা ভক্তের মন ভেঙেছিল তাঁর বিয়ের খবরে। যা নিয়ে কাবো সেই সময় বলেছিলেন, ‘শুরু থেকেই আমার স্ত্রী,পূজা আমাকে খুব সাপোর্ট করেছে। ও না থাকলে আমি এতদূর আসতে পারতাম না।’ একসময় টুরিস্ট গাইড হিসাবে কাজ করতেন। কোনওদিনই প্রকৃত প্রশিক্ষণ নেওয়া হয়নি গানের, তবে রাতের অন্ধকারে বর্ন-ফায়ারের আসরে কাবোর গান শুনে মুগ্ধ হয়নি এমন কেউ নেই। সবার পরামর্শ মতোই সারেগামাপা-র অডিশন দেন কাবো। আর তারপর তাকে আর পিছনে ফিরে তাকাতে হয়নি, সম্পূর্ণ বদলে যায় তার জীবন।

Leave a Comment