লেটেস্ট খবরবিনোদনভাইরাললাইফ স্টাইলরেসিপি

Zee Bangla: একই সপ্তাহে বন্ধ জি বাংলার তিনটি মেগা! দু-মাসেই কেন শেষ অষ্টমী? জানুন আসল কারণ

Published on:

WhatsApp Group Join Now

Zee Bangla: বর্তমানে ধারাবাহিক গুলির টিকে থাকা নির্ভর করে থাকে টিআরপি রেটিং এর উপর। যেই ধারাবাহিকের টিআরপি রেটিং যত ভালো সেই ধারাবাহিক টিকে থাকবে ততদিন। কারণ এখন পুরোটাই টিআরপি নির্ভরশীল। সেই কারণে এমন বহু ধারাবাহিক রয়েছে যেগুলো ২ মাস ৩ মাস যেতে না যেতেই বন্ধ হয়ে যায়।

সম্প্রতি সেরকমই বেশ কয়েকটি ধারাবাহিক বন্ধ হতে চলেছে। তার মধ্যে রয়েছে কার কাছে কই মনের কথা, আলোর কোলে এবং অষ্টমী। বর্তমানে ধারাবাহিক জগতে সবচেয়ে পুরোনো দুটি ধারাবাহিক হল স্টার জলসার অনুরাগের ছোঁয়া এবং জি বাংলার (Zee Bangla) জগদ্ধাত্রী।

আলোর কোলে’র প্রযোজনা সংস্থা এনআইডিয়াস ক্রিয়েশন। যার সঙ্গে জড়িয়ে প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়ের নাম। তবুও দর্শক মনে দাগ কাটতে পারেনি এই মেগা। অপর দুই ধারাবাহিকই অর্ক গঙ্গোপাধ্যায়ের অর্গ্যানিক প্রোডাকশনের। কার কাছে কই মনের কথা তাও শুরুর দিকে দর্শকদের পছন্দ হলেও এখন আর ভালো লাগছে না।

অন্যদিকে প্রথম দিন থেকেই অষ্টমী ভালো ফলাফল করতে পারেনি। তাই তো প্রথম প্রোমোর ট্র্যাক শুরুর আগেই শনিবার এই মেগার শেষদিনের শ্যুটিং হয়ে গেল। মাত্র দু-মাসে সিরিয়াল বন্ধ নিয়ে অর্গানিকের কর্ণধার তথা লীনা গঙ্গোপাধ্যায় পুত্র জানালেন, ‘রেটিং চার্টে ধারাবাহিকের যতটা ভাল ফল করা উচিত ছিল, ততটাও হয়নি। সম্ভবত, দর্শকমনে তেমন ভাবে সাড়া জাগাতে পারেনি।’

WhatsApp Group Join Now

আরও পড়ুন: Today’s Gold Rate: ঊর্দ্ধমুখী সোনা, রুপোর দাম, কপালে হাত মধ্যবিত্তের

সিরিয়ালে জনপ্রিয় অভিনেতা কৌশিক চক্রবর্তীকে একই সঙ্গে নারী ও পুরুষ অবতারে দেখেছে দর্শক। প্রচলিত কুসংস্কারের বিরুদ্ধে অষ্টমীর রুখে দাঁড়ায়। তবে সেই গল্প পছন্দ হয়নি কারোর। অষ্টমী দু-মাসেই বন্ধ হওয়ায় মন খারাপ গোটা ইউনিটের। তবে তার পরিবর্তে আসছে নতুন ধারাবাহিক ‘পুবের ময়না’। পশ্চিমবঙ্গের সংস্কৃতির মেলবন্ধন উঠে আসবে এই ধারাবাহিকে। প্রাণ বাঁচাতে বাংলাদেশ থেকে পালিয়ে আসা ময়না। তারপর ধীরে এগোবে ধারাবাহিকের গল্প।

About Author
Ankana Chowdhury

নমস্কার আমার নাম অঙ্কনা চৌধুরী। আমি বিগত দু'বছর ধরে ডিজিটাল মিডিয়াতে কাজের সঙ্গে যুক্ত রয়েছি। এই দু বছরে আমি বিভিন্ন ধরনের বিষয়ের উপরে জেনারেল নিউজ লিখেছি। এবং বর্তমানে আমি অনেকটাই কাজ শিখে এই জেনারেল নিউজ লেখায় নিজেকে সাবলীল করে তুলেছি। এই কয়েক বছরে আমার অভিজ্ঞতা ভীষণই ভালো।