Icche Putul: বাড়ি থেকে তাড়িয়েই শেষ নয়, ইউনিভার্সিটি থেকেও মেঘকে সরাতে মারাত্বক চাল খেলল ময়ূরী

WhatsApp Channel Join Now
Google News Follow

বর্তমানে জি বাংলায় (Zee Bangla) বেশ কয়েকটি নতুন ধারাবাহিক শুরু হয়েছে। সেগুলির মধ্যে থেকে অন্যতম হলো ইচ্ছে পুতুল (Icche Putull)। এই ধরনের একটি অল্প সময়ের মধ্যেই বেশ জনপ্রিয়তা লাভ করেছে। কিন্তু এখনো পর্যন্ত টিআরপি তালিকায় জায়গা করে নিতে পারেনি। বর্তমানে সোশ্যাল মিডিয়ায় এই ধারাবাহিক সম্পর্কে সমালোচনা আর প্রশংসা দুটোই শোনা যায়। নতুন টুইস্টের কারণে এবার জনপ্রিয়তা আরো খানিকটা বাড়তে চলেছে বলে আশা করা যাচ্ছে।

এই ধারাবাহিকের নায়িকা মেঘ (Megh)। তার দিদি ময়ূরী সবসময় তার ক্ষতি চেয়ে এসেছে। মেঘের ক্ষতি করতেই মূলত রূপকে কাজে লাগিয়েছিল ময়ূরী। মিথ্যে বদনাম দিয়ে শ্বশুরবাড়ি ছাড়া করেছে মেঘকে। কেউ বিশ্বাস করেনি মেঘকে। এমনকি তার স্বামীও ভুল বুঝেছে। বর্তমানে মেঘ রয়েছে তার বাবার কাছে।

আগামী এপিসোডগুলোতে দর্শকদের জন্য একের পর এক নতুন টুইস্ট (New twist) আসতে চলেছে। তাই একদম মিস করবেন না ইচ্ছে পুতুল(Icche Putul)। তবে শোনা যাচ্ছে জি বাংলা একটি নতুন ধারাবাহিক আসতে চলেছে। আর সেই কারণেই হয়তো খুব শীঘ্রই শেষ হয়ে যেতে পারে এই ধারাবাহিক‌ (Icche Putul)।

ময়ূরীর মেঘের প্রতি হিংসা প্রচুর। এই কারণেই নেট পাড়ায় সমালোচিত হচ্ছে এই চরিত্রটি। ময়ূরীর এবার বদমাইশি সব সীমা ছাড়িয়ে গেছে (Icche Putul)। মেঘের শ্বশুর বাড়ির লোকেদের কাছে পর্যন্ত নিজেকে ভালো আর মেঘ (Megh) কে দুশ্চরিত্র প্রমাণ করেছে। তবে আর মেঘ মুখ বুঝে অপমান সহ্য করবে না। অবশেষে মুখ খুলেছে সে। প্রতিটা অপমানের গুনে গুনে উত্তর দিয়েছে সে।

মেঘের স্বামী সৌরনীলও যখন তাকে আর বিশ্বাস করেনি, বাধ্য হয়ে শ্বশুরবাড়ি ছেড়ে বাবার কাছে চলে এসেছে। নীল কোন কিছু যাচাই না করেই মেঘকে ছোট করেছে। তাই এবার সম্পর্কটা ডিভোর্সের (Divorce) পর্যায়ে চলে এসেছে। মেঘ আর নীল দুজনেই এবার আলাদা হয়ে যেতে চাইছে।

মেঘ বুঝে গেছে এই সব কিছুর পিছনে রয়েছে ময়ূরীর হাত। তাই সে আর কোন মতেই ময়ূরী কে বিশ্বাস করে না। শ্বশুরবাড়ি ছেড়ে আসলেও অশান্তি তার পিছু ছাড়েনি। এখন মা আর দিদি মিলে তাকে জ্বালাচ্ছে। ময়ূরী (Mayuri) ক্রমাগত চেষ্টা করে চলেছে মেঘকে ইউনিভার্সিটি বদল করানোর।

Leave a Comment