লেটেস্ট খবরবিনোদনভাইরাললাইফ স্টাইলরেসিপি

Nita Ambani’s Expensive Saree: ছোট ছেলের বিয়ে উপলক্ষে সোনা-রুপোর কাজ করা শাড়ি কিনলেন আম্বানি ঘরণী; শাড়ির দাম শুনলে চমকে যাবেন আপনিও

Published on:

WhatsApp Group Join Now

Nita Ambani’s Expensive Saree: গোটা আম্বানি পরিবারে এখন জোরকদমে চলছে বিয়ের তোড়জোড়। আগামী ১২ই জুলাই বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হতে চলেছেন রাধিকা মার্চেন্ট ও অন্তত আম্বানি। সেই খুশিতেই মেতে উঠেছে গোটা আম্বানি পরিবার। এর আগে রাধিকা ও অনন্তের প্রি ওয়েডিং টক অফ দ্য টাউন হয়েছিল। সারা ভারত দেখেছিল প্রি-ওয়েডিং- এর সেই চমক।

ছেলের বিয়ে উপলক্ষে কাশী বিশ্বনাথ মন্দিরে ছেলের বিয়ের কার্ড দিতে গিয়েছিলেন নীতা আম্বানি। ছোট ছেলের বিয়ের জন্য বারাণসী থেকে একটি বিশেষ শাড়িও কিনেছেন তিনি। শুধু তাই নয়, সঙ্গে কিনেছেন আরও ৬০ টি লক্ষ বুটির শাড়ি। আসলে বারাণসী সফরে গিয়ে আম্বানি ঘরণী যে হোটেলে ছিলেন, সেখানে গভীর রাতে বারাণসীর তাঁতিরা একটি শাড়ির একটি স্টল তৈরি করেছিলেন। এরপর বিভিন্ন ডিজাইনের শাড়ি দেখনো হয় নীতা আম্বানিকে।

এরপরই শাড়ি ব্যবসায়ী অমরেশ কুশওয়াহার সঙ্গে সরাসরি যোগাযোগ করে নীতা আম্বানির টিম। এরপর অমরেশ বিভিন্ন ডিজাইনের বিপুল শাড়ির সম্ভার নিয়ে আসেন নীতার সামনে। এত শাড়ির মধ্যে, নিজের জন্য কোনিয়ার ট্রেন্ড লক্ষ বুটির শাড়ি পছন্দ করেন নীতা আম্বানি। অমরেশ কুশওয়াহার জানিয়েছেন, নীতা আম্বানির টিম তাঁর সঙ্গে যোগাযোগ করেছিল।

এরপর তিনি ৬০টি শাড়ি নিয়ে হোটেলে গিয়েছিলেন। গভীর রাতে নীতা আম্বানি নিজেই দেখে নিজের জন্য লক্ষ বুটি শাড়িটি পছন্দ করেন। শাড়িটি সোনা এবং রুপো দিয়ে তৈরি এবং লাল রঙের ছিল। তিনি জানান, তাঁর নিয়ে যাওয়া সব শাড়ি এখনও তাঁর কাছেই আছে। শাড়িটি তৈরি করতে সময় লেগেছিল প্রায় ৫০ থেকে ৬০ দিন। ছেলের নিয়ে উপলক্ষে নীতা আম্বানি নিজের জন্য যে শাড়িটি পছন্দ করেছেন তার বাজার মূল্য ১ লক্ষ ৮০ হাজার টাকা।

WhatsApp Group Join Now

শাড়ি প্রস্তুতকারক ছোটে লাল পাল জানিয়েছেন, “নীতা আম্বানির পছন্দের শাড়িটি তৈরি করেছি। এর বিশেষত্ব হল এটি সিল্কের কাপড়ে বোনা। এতে রয়েছে রুপোর তার এবং সোনার প্রলেপ। এই শাড়িটি ৬০ থেকে ৬২ দিনে তৈরি করা হয়েছে। আমি খুব খুশি যে নীতা আম্বানি আমার তৈরি শাড়িটি পছন্দ করেছেন। তিনি যখন পরবেন, তখন সবাইকে বলব আমি এই শাড়িটা বানিয়েছি।”

আরও পড়ুন: Digha Jagannath Temple: নির্মাণকার্য প্রায় শেষের দিকে! উল্টোরথেই পর্যটকদের জন্য খুলে যাচ্ছে দীঘার জগন্নাথ মন্দির? জেনে নিন বিস্তারিত

উল্লেখ্য, আগামী ১২ জুলাই জিও ওয়ার্ল্ড সেন্টারে সাত পাকে বাধা পড়বে অনন্ত- রাধিকা। হিন্দু রীতিনীতি মেনেই সম্পন্ন হবে বিবাহ। ১৩ জুলাই হবে আশীর্বাদ অনুষ্ঠান। সকল অতিথি ও পরিবারের সদস্যরা সেদিনই নবদম্পতিকে আশীর্বাদ করবেন। এরপর গ্র্যান্ড রিসেপশন পার্টি অনুষ্ঠিত হবে ১৪ জুলাই। তিন দিনের বিয়ের অনুষ্ঠানে বসবে চাঁদের হাট। জানা গিয়েছে, অনন্ত ও রাধিকা নিজেরাই তারকাদের তাঁদের বিয়ের কার্ড দিয়ে আমন্ত্রণ জানাচ্ছেন।

About Author
Adhrit Roy

বিগত প্রায় চার বছর ধরে ডিজিটাল মিডিয়ায় কাজের সঙ্গে যুক্ত। যেকোনো ধরণের জেনারেল নিউজ লেখায় পারদর্শী।