লেটেস্ট খবরবিনোদনভাইরাললাইফ স্টাইলরেসিপি

Ranu Mondal: অতিরিক্ত অহংকারই হল পতনের মূল কারণ, আবারো নিজের ভাঙাচোরা বাড়িতে ফিরে এলেন রানু মন্ডল

Published on:

Ranu Mondal: ভাইরাল রানু মন্ডল এর কথা নিশ্চয়ই আপনাদের সকলেরই মনে আছে। মনে থাকারই কথা, ২০১৯ সালে বিপুল পরিমাণে ভাইরাল হয়েছিলেন রানাঘাট এলাকার রানু মন্ডল। লতা মঙ্গেশকরের গান গেয়ে ভিক্ষা করছিলেন তিনি রানাঘাট স্টেশনে।
আর সেই সময় এক ব্যক্তির নজরে আসেন, তিনি সোশ্যাল মিডিয়া রানু মন্ডল এর গানের ভিডিও পোস্ট করে দেন এরপরে সেই ভিডিও মুহূর্তের মধ্যেই ভাইরাল হয়ে পড়ে সোশ্যাল মিডিয়া জুড়ে। এরপর থেকে রানু মন্ডলও ভাইরাল। শুধুমাত্র যে ভাইরাল হয়েছে তা নয় বলিউডের জনপ্রিয় গায়ক হিমেশ রেশমির নজরে এসেছিলেন রানু (Ranu Mondal)। হিমেশ রেশমি নিজের মিউজিক অ্যালবামের রানু মণ্ডলকে গান গাওয়ার সুযোগ করে দেন।
WhatsApp Group Join Now

তবে খুব বেশিদিন নিজের এই সুখের জীবন কাটাতে পারেনি রানু মন্ডল। নিজের অতিরিক্ত অহংকার এবং দম্ভের কারণেই তিনি খুব তাড়াতাড়ি নিচে নেমে আসেন। তার বিলাসবহুল জীবন সুখ্যাতি সুনাম সবকিছু ধুলোয় মিশে যায়। আবারও নিজের পুরনো রানাঘাটের ভাঙাচোরা বাড়িতে ফিরে আসেন তিনি। বর্তমানে রানু মন্ডলের বাড়িতে কিছু ইউটিউবার আসে নিজেদের ইউটিউব চ্যানেলের রিচ বাড়ানোর জন্য। তারা রানু মন্ডলের ইন্টারভিউ নেয় তার সঙ্গে কথাবার্তা বলে। অনেকে আবার বিভিন্ন রকম সাহায্য করতেও আসে। তবে রানু মন্ডল(Ranu Mondal) তাদের সঙ্গে নানা রকম মজার কান্ড ঘটিয়ে ফেলে। যার জন্য সোশ্যাল মিডিয়ায় তিনি মাঝেমধ্যে ভাইরাল হয়ে পড়েন।

তার সেই সমস্ত ভিডিও দেখে অনেকেই হাসির খোরাক বানিয়ে তোলেন তাকে। অনেকে এই বিষয়টির প্রতিবাদও করে, আবার অনেকে পুরো ব্যাপারটাই মজার ছলে নেন। শুধুমাত্র নিজেদের ইউটিউবের রিচ বাড়ানোর জন্য কয়েকটা টাকার জন্য একজন মানুষকে এভাবে হাসির পাত্র করে তোলা সত্যি কি ঠিক হচ্ছে?

আরও পড়ুন: WBCHSE 1St Sem Exam Date: কবে হবে উচ্চমাধ্যমিকের প্রথম সেমিস্টারের পরীক্ষা? কী আপডেট সংসদের? জানুন বিস্তারিত

About Author
Ankana Chowdhury

নমস্কার আমার নাম অঙ্কনা চৌধুরী। আমি বিগত দু'বছর ধরে ডিজিটাল মিডিয়াতে কাজের সঙ্গে যুক্ত রয়েছি। এই দু বছরে আমি বিভিন্ন ধরনের বিষয়ের উপরে জেনারেল নিউজ লিখেছি। এবং বর্তমানে আমি অনেকটাই কাজ শিখে এই জেনারেল নিউজ লেখায় নিজেকে সাবলীল করে তুলেছি। এই কয়েক বছরে আমার অভিজ্ঞতা ভীষণই ভালো।