লেটেস্ট খবরবিনোদনভাইরাললাইফ স্টাইলরেসিপি

Kanchan-Sreemoye: হয়নি মধুচন্দ্রিমা! বিয়ের পর প্রথম জামাইষষ্ঠীতেই বিচ্ছেদের সুর কাঞ্চন-শ্রীময়ীর সংসারে!

Published on:

WhatsApp Group Join Now

Kanchan-Sreemoye: বিয়ের এক বছরও পার হয়নি কাঞ্চন-শ্রীময়ীর! বিয়ের পর এইবছর প্রথম জামাইষষ্ঠী তাদের। আর এইবার ছোট মেয়ে জামাইকে আদর করে খাইয়ালেন শ্রীময়ীর মা। খাবার পাতে লুচি ছোলার ডাল থেকে কাতলা মাছের মাথা বা পোলাও বাদ পড়েনি কিছুই। শেষ পাতে আবার দই, মিষ্টি, পায়েস। কিন্তু এমন এলাহি আয়োজনের মধ্যেও শোনা গেল বিচ্ছেদের সুর। কিন্তু কেন?

বিয়ের চার মাস অতিক্রান্ত হতে চলেছে কিন্তু এখনও পর্যন্ত মধুচন্দ্রিমায় যেতে পারেননি কাঞ্চন শ্রীময়ী। আর এর নেপথ্যে আসল কারণ কাঞ্চনের কাজ। লোকসভা ভোটের জন্য কাজে ব্যস্ত ছিলেন উত্তরপাড়ার বিধায়ক। বিয়ের কিছুদিনের মধ্যেই একাকিত্ব নাকি গ্রাস করেছে শ্রীময়ীকে। মজার ছলে শ্রীময়ী জানান এমনভাবে চলতে থাকে কাঞ্চনকে ডিভোর্স দেওয়ার কথাও ভাবতে পারেন তিনি।

তবে কাঞ্চনের উপর অভিযোগ উঠতেই স্ত্রীর মন রাখতে তাঁকে কথার সুরে বেঁধে ফেলে কাঞ্চন জানান,” তুমি আমার মধু, আকাশে আছে চাঁদ, এইখানেই মধুচন্দ্রিমা।’’ কিন্তু এত সহজে চিরে তো ভেজবার নয়। আদুরে গলায় শ্রীময়ী জানান, উপহার পেতে বেশ ভালোবাসেন তিনি সেই উপহার খুব সামান্য হলেও ক্ষতি নেই তবে তাঁকে প্রতিদিন নিত্যনতুন ভাবে চমকে দিতে হবে, এমনটাই দাবি শ্রীময়ীর। তবে এই বিষয়ে তেমন পটু নন কাঞ্চন।

জন্মদিন বা অন্য কোনও বিশেষ দিনে উপহার দেওয়ার কথা মনে রাখতে পারেন না তিনি। এইসবের মধ্যে মিটিমিটি হাসছেন কাঞ্চনের শাশুড়িমা। ছোট জামাইকে ধুতি-পাঞ্জাবি উপহার দিয়েছেন তিনি। অন্যদিকে নিজের শ্বশুর শ্বাশুড়ির জন্য উপহার দিতে ভোলেননি কাঞ্চন। অভিনেতা জানান, ‘‘বয়স যত বাড়ে, উপহার দেওয়ার মানুষের সংখ্যা কমে যায়। তাই জামাইষষ্ঠীর দিনে শ্বশুর-শাশুড়িকে উপহার দেওয়া দরকার।’’

WhatsApp Group Join Now

আরও পড়ুন: Gold Price Today: জামাই ষষ্ঠীতে সোনার দামে বড়সড় পরিবর্তন! জানুন আজকে কলকাতার বাজারমূল্য

উল্লেখ্য, শ্রীময়ীদের বাড়িতে জামাইষষ্ঠী মনে শুধুই ভূরিভোজ এমনটা কিন্তু নয়। সেখানে রয়েছে আরও কিছু নিয়ম রীতিনীতি। জামাইয়ের হাতে তুলে দিতে হয় কাঁঠাল পাতায় পাঁচ ফল, নতুন জামাকাপড়, তার পাশাপাশি হাতে বেঁধে দিতে হয় হলুদ সুতো, আর পাখার বাতাস করে শাশুড়ি বলেন, ‘ষাট্ ষাট্ ষাট্’।

আরও পড়ুন: Suhana Khan: হীরের নেকলেসে নজর কাড়লেন শাহরুখ কন্যা! দাম শুনলে চমকে উঠবেন আপনিও

তবে এক শাশুড়ি নন কাঞ্চনের জন্য আসানসোল থেকে এসেছেন মাসিশাশুড়িও। শ্রীময়ী বলেন, ‘‘আসলে আমার মা-মাসিরা চার বোন। সকলেরই ছেলে, শুধু আমার মায়ের দুই মেয়ে। তাই মাসি চেয়েছিল এই জামাইষষ্ঠীতে যোগ দিতে।’ তবে ষষ্ঠীর সকালেও জামাই একের পর এক কাজ রাখায় অভিযোগ তুলেছেন শ্বাশুড়িমাও। কাঞ্চনকে কথা দিতে হয়েছে বিকেলে ফিরেই শাশুড়ির সঙ্গে দেখা করতে যাবেন তিনি। ততক্ষণ ফলার করে তার জন্য অপেক্ষা করবেন শ্রীময়ীর মা।

About Author
Adhrit Roy

বিগত প্রায় চার বছর ধরে ডিজিটাল মিডিয়ায় কাজের সঙ্গে যুক্ত। যেকোনো ধরণের জেনারেল নিউজ লেখায় পারদর্শী।