LIC: এলআইসির এই পলিসি থাকলেই ঋণ পাবেন গ্রাহকরা; জানুন বিস্তারিত

WhatsApp Channel Join Now
Google News Follow

LIC: অনেক মানুষই ব্যক্তিগত কারণে ব্যাংক থেকে লোন নিয়ে থাকেন। তবে অনেক মানুষই জানেন না এলআইসির (LIC) তরফে গ্রাহকদের লোন দেওয়া হয়ে থাকে। অবাক লাগলেও এটাই সত্যি! আজকের প্রতিবেদনে জেনে নিন কীভাবে এলআইসি থেকে ঋণ নেওয়া সম্ভব এবং ঋণ নিতে কী কী যোগ্যতা প্রয়োজন!

বিভিন্ন ব্যাংকের মতো বর্তমানে এলআইসি (LIC) গ্রাহকদের ব্যক্তিগত লোন দিলেও তার জন্য গ্রাহকদের একটি এলআইসি (LIC) পলিসি থাকা অত্যন্ত জরুরি। এছাড়াও ব্যক্তিগত লোন নেওয়ার ক্ষেত্রে বেশ কিছু প্রয়োজনীয় যোগ্যতা থাকতে হবে গ্রাহকদের।

আরও পড়ুন: Investment: এই প্ল্যানে প্রতি মাসে ১০০ টাকা জমিয়ে পেয়ে যাবেন ১ কোটি টাকা! জানুন বিস্তারিত

এলআইসি (LIC) থেকে লোন নেওয়ার পদ্ধতি:

এলআইসি থেকে লোন নিতে চাইলে কমপক্ষে একটি পলিসি থাকতে হবে। এই পলিসি থেকে সহজেই লোন পাবেন গ্রাহকরা। এলআইসি-র লোন পাওয়ার জন্য প্রথমে প্রতিষ্ঠান থেকে চাওয়া সমস্ত শর্ত পূরণ করতে হবে। এরপর এলআইসির হোম অফিসে গিয়ে সেখানে কিছু প্রয়োজনীয় তথ্য এবং নথি জমা দিয়ে প্রতিষ্ঠান থেকে চাওয়া সমস্ত গুরুত্বপূর্ণ তথ্য সহ একটি আবেদন জমা করতে হবে।সবকিছু তথ্য মিলে গেলে যদি এই লোন পাওয়া যাবে। বর্তমানে এলআইসি অফলাইনে ঋণ প্রদান করে থাকে। এই মুহূর্তে এই লোন নেওয়ার জন্য অনলাইন আবেদনের কোনো অপশন নেই।

এলআইসি থেকে লোন নেওয়ার যোগ্যতা:

  • আবেদনকারীর বয়স ন্যূনতম ১৮ বছর হতে হবে।
  • আবেদনকারীর একটি বৈধ এলআইসি পলিসি থাকতে হবে।
  • লোন নেওয়া এলআইসি পলিসির একটি Surrender অ্যামাউন্ট থাকতে হবে।
  • বৈধ এলআইসি পলিসিটি থাকতে কমপক্ষে ৩ বছরের পুরনো এবং কমপক্ষে ৩ টি পলিসি প্রদান করতে হবে।

জেনে নিন এলআইসির কোন কোন পলিসিতে নামে সুবিধা পাওয়া যাবে?

  1. জীবনের প্রগ্রতি
  2. জীবন লাভ
  3. সিঙ্গল-প্রিমিয়াম এন্ডোমেন্ট প্ল্যান
  4. নতুন এন্ডোমেন্ট প্ল্যান
  5. নতুন জীবনানন্দ
  6. জীবন রক্ষক
  7. লিমিটেড প্রিমিয়াম এন্ডোমেন্ট প্ল্যান
  8. জীবনের লক্ষ্য
এই পলিসির মধ্যে যে কোনো একটি থাকলে গ্রাহকরা খুব সহজেই লোন পেয়ে যাবেন।

জেনে নিন, এলআইসি থেকে লোন নিতে গেলে কোন কোন নথি প্রয়োজন ?

  • আবেদনপত্র ও লেটেস্ট ছবি।
  • আসল পলিসি বন্ড এবং ডকুমেন্টস।
  • আধার কার্ড, কিংবা প্যান কার্ডের পরিচয় পত্র।
  • বিদ্যুৎ বিল এবং রেশন কার্ডের মতো রেসিডেন্স সার্টিফিকেট।
  • ব্যাংক স্টেটমেন্ট এবং আইটিআর-এর মতো আয়ের প্রমাণ।

এলআইসি লোনের বৈশিষ্ট্য:

  • এই লোনে সুদের পরিমাণ গ্রাহকের প্রোফাইল এবং সিবিলের উপর নির্ভর করে। যা থেকে বোঝা যাবে গ্রাহকের প্রোফাইল ভালো না খারাপ।
  • কোন গ্রাহককত ঋণ পাবেন তা তার Surrender Value-র উপর নির্ভর করবে।
  • ঋণ নেওয়ার পরে, এলআইসি গ্রাহকের পলিসি বন্ধক রাখে। কেউ সময় মতো ঋণ শোধ না করলে এলআইসি সেই পলিসি বন্ধ করে দেয়।
  • কারোর ঋণের পরিমাণ Surrender Value-র চেয়ে বেশি হলে এলআইসির পলিসি বন্ধ হয়ে যেতে পারে।

সব খবর সবার আগে জানতে অবশ্যই ফলো করুন আমাদের Google News। এছাড়াও যুক্ত হতে পারবেন সরাসরি আমাদের WhatsApp Channel এও।

Leave a Comment