লেটেস্ট খবরবিনোদনভাইরাললাইফ স্টাইলরেসিপি

Cooler In School: অতিরিক্ত গরম থেকে পড়ুয়াদের রেহাই দিতে স্কুলে বসছে কুলার! একাধিক পরামর্শ শিক্ষক মহলের!

Published on:

WhatsApp Group Join Now

Cooler In School: গরমে বাড়িতে টেকাই দায় হয়ে পড়েছে তার উপরে আবার স্কুলে যাওয়া। ছাত্র-ছাত্রীদের স্কুলে পাঠাতে ভয় পাচ্ছেন তাদের বাবা-মায়রা কারণ যে কোন মুহূর্তে হিট স্ট্রোকের মতন সম্ভাবনা উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছে না। ইতিমধ্যেই বিহার উত্তরপ্রদেশ প্রভৃতি রাজ্য স্কুলে প্রচন্ড গরমে অসুস্থ হয়ে পড়ার মতন খবর পাওয়া যাচ্ছে। এদিকে স্কুল খুলে গিয়েছে গরমের ছুটির পর। ১০ই জুন থেকে স্কুলে যাওয়া শুরু করেছে পড়ুয়ারা। কিন্তু দক্ষিণবঙ্গের বেশিরভাগ জেলায় বৃষ্টির দেখা পাওয়া যাচ্ছে না।

কবে আসবে বৃষ্টি:

কবে বৃষ্টি হবে তা নিশ্চিত করে বলতে পারছে না আবহাওয়া অফিস। চাতক পাখির মতন বৃষ্টির জন্য অপেক্ষায় রয়েছেন সাধারণ মানুষ। সেই সঙ্গে ছেলেমেয়েদের পড়াশুনা নিয়ে চিন্তিত বাবা-মায়েরা। শিক্ষক শিক্ষিকারা স্কুলে আসলেও পড়ুয়াদের সংখ্যা হাতে গোনা। এভাবে কি করে স্কুল চলতে পারে তা বুঝতে পারছেন না তারাও। এদিকে বিকল্প ছুটির ব্যবস্থা করবার আবেদন জানিয়েছে কিছু শিক্ষক সংগঠন। কেউ কেউ আবার স্কুলের সময় পরিবর্তন করবার আর্জি জানিয়েছেন। কিন্তু এর মধ্যে স্কুলে এক অভিনব আয়োজন।

স্কুলে বসলো এয়ার কুলার:

দক্ষিণ ২৪ পরগনার বকুলতলা এফপি স্কুলে লাগানো হয়েছে কুলার। এয়ার কুলার লাগানো হয়েছে স্কুলের পক্ষে আর সেখানেই দিব্যি পড়াশোনা করছেন ছাত্রছাত্রীরা। ছোট শিশুদের স্বাস্থ্য সুরক্ষার কথা ভেবে এই কাজ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন স্কুলের প্রধান শিক্ষক নির্মল কুমার সামন্ত। ক্যামেরার মুখোমুখি হয়ে তিনি জানান অতিরিক্ত গরমের হাত থেকে ছাত্রছাত্রীদের স্বস্তি দিতে এই কুলার বসানো হয়েছে। যেভাবে গরম বাড়ছে তাতে ছাত্রছাত্রীরা পড়াশোনায় মন দিতে পারছে না। এদিকে স্কুলে না আসলে তাদের ক্ষতি হবে। তাই সবদিক বিবেচনা করে এই এয়ার কুলার বসানো হয়েছে।

আরও পড়ুন: Smart AC: আকাশ ছোঁয়া বিদ্যুৎ বিলের টেনশন করতে হবে না আর! এইবার বিল আসবে অর্ধেক! আজই ঘরে আনুন এই এসি

বলাবাহুল্য শিক্ষক মহাশয়দের পকেটের পয়সা খরচ করে এই কুলার বসানো হয়েছে। কুলার বসানোর পর থেকেই উল্লেখযোগ্যভাবে শিক্ষার্থীরা আসতে শুরু করেছেন স্কুলে। কুলারের ঠান্ডা হাওয়ার মধ্যে পড়াশোনা করতে বেশ ভালো লাগছে। তাছাড়া ক্লাস ছেড়ে বাড়িতে যেতে চাইছে না কেউ। তবে আপাতত তিনটি ঘরে এই কুলার বসানো হয়েছে ধীরে ধীরে অন্যান্য ঘর গুলিতে বসানো হবে। এমন অভিনব আয়োজন করলে গরমের হাত থেকে সাময়িক শক্তি মিলবে সেই সঙ্গে পড়াশোনাতেও বসবে মন।

About Author
Adhrit Roy

বিগত প্রায় চার বছর ধরে ডিজিটাল মিডিয়ায় কাজের সঙ্গে যুক্ত। যেকোনো ধরণের জেনারেল নিউজ লেখায় পারদর্শী।