লেটেস্ট খবরবিনোদনভাইরাললাইফ স্টাইলরেসিপি

অবশেষে শিমুলের হয়ে প্রতিবাদী পরাগ, তার এরুপ আচরন দেখে বেজায় খুশি ভক্তরা

Published on:

সন্ধ্যা হলেই আমাদের বাড়ির মা, কাকিমারা সবাই বসে পড়েন টিভির সামনে তাদের পছন্দমত ধারাবাহিকগুলো দেখার জন্য। সন্ধ্যার পর থেকে একের পর এক ধারাবাহিক শুরু হতে থাকে টিভির পর্দায়। প্রসঙ্গত জি বাংলায় শুরু হয়েছে কয়েকটি নতুন ধারাবাহিক। তার মধ্যে একটি অন্যতম হলো “কার কাছে কই মনের কথা”। প্রসঙ্গত বাস্তবিক সাংসারিক ঘটনাবলী এই ধারাবাহিকের মাধ্যমে তুলে ধরা হয়েছে।

WhatsApp Group Join Now
Telegram Group Join Now

এই ধারাবাহিকের শিমূল চরিত্রটি দর্শকের বেশ দৃষ্টি আকর্ষণ করেছে। কিন্তু অন্যদিকে আবার পরাগ এবং তার মায়ের চরিত্রটি দর্শককে বেশ বিরক্ত করে তুলেছে। বাড়ির বউ এর প্রতি এমন অমানবিক অত্যাচারে তীব্র প্রতিবাদ করেছেন দর্শকরা। এই ধারাবাহিক বন্ধ করার আবেদনও উঠেছে নেট মহলে। এই ধারাবাহিক বন্ধ এড়াতে আনা হয়েছে নতুন মোর। একটু অন্যরকম ভাবে পরিবেশন করছেন লেখিকা।

Kar Kache Koi Moner Kotha
Kar Kache Koi Moner Kotha

শিমুলের শাশুড়ির শিমুলের প্রতি এ হেন আচরণের কারণ হিসাবে শিমুলের শাশুড়ির অতীত তুলে ধরা হয়েছে গল্পটিতে। কিভাবে তাকে নানা বাহানায় অপমানিত অত্যাচারিত করা হতো সেটাই শোনাচ্ছেন এ ধারাবাহিককে যেটা শুনে শিমুলের শাশুড়ির প্রতি শিমুল কিছুটা কষ্ট অনুভব করতে পারছে। আসলে শাশুড়িও যে কখনও বউ ছিলেন আর তার জীবনেও এমন কঠিন বাস্তব থাকতে পারে তা হয়ত নিজের জীবনের প্যাঁচে মানুষ ভাবতেই ভুলে যায়। আবার অন্যদিকে পরাগ তার মায়ের সাথে শিমুলের হয়ে কথা বলাই দর্শক বেশ খুশি হয়ে উঠেছে।

শিমুল রান্নাঘরের দায়িত্ব নিজের কাঁধে নিয়ে সবাইকে ভালো ভালো রান্না করে খাওয়াচ্ছে এটা শিমুলের শাশুড়ির মোটেই পছন্দ নয়। তখন পরাগ শিমুলের হয়ে তার মাকে বলেছে মাসে যদি দু তিন দিন ভালো কিছু হয় তাহলে কি খুব কম পড়ে যাবে ? বউয়ের হয়ে এই প্রথমবার পরাগ তার মায়ের মুখের উপর কথা বলায় দর্শক বেশ আপ্লুত। কিছু না হোক ধারাবাহিকের একঘেয়েমি কাটাতে এটা দরকারই ছিল।

About Author
Adhrit Roy

বিগত প্রায় চার বছর ধরে ডিজিটাল মিডিয়ায় কাজের সঙ্গে যুক্ত। যেকোনো ধরণের জেনারেল নিউজ লেখায় পারদর্শী।

Leave a Comment