Post Office: পোস্ট অফিসের এই স্কিমে ২ লাখ টাকা জমিয়ে পেয়ে যান ৪ লাখ টাকা; জানুন কীভাবে!

WhatsApp Channel Join Now
Google News Follow

Post Office: ব্যাংকের পাশাপাশি পোস্ট অফিসের (Post Office) তরফে গ্রাহকদের জন্য বিভিন্ন সময় আকর্ষণীয় স্কিম (Post Office Scheme) লঞ্চ করা হয়ে থাকে। যা থেকে উপকৃত হল তারা। পোস্ট অফিসে সকল সেভিংস স্কিম সরকার দ্বারা অনুমোদিত হওয়ায় এখানে টাকা বিনিয়োগ সম্পূর্ণ নিরাপদ। পাশাপাশি নিশ্চিত রিটার্নও পাওয়া যায়। সমগ্র দেশব্যাপী ১.৫ লক্ষ শাখা থেকে পোস্ট অফিসের সকল প্রকল্পে সুবিধা নিতে পারেন গ্রাহকরা।

post office
post office

সুদের পরিমাণ: পোস্ট অফিসের বিভিন্ন স্কিম থাকলেও অনেকেই নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে তাদের বিনিয়োগ দ্বিগুণ করতে চান। এই সকল গ্রাহকদের জন্য আদর্শ হলো পোস্ট অফিসের কিষান বিকাশ স্কিম। এই স্কিমে গ্রাহকরা বিনিয়োগের উপর ৭.৫ শতাংশ হারে সুদ পেয়ে থাকেন।

বিনিয়োগের পরিমাণ: এই স্কিমে গ্রাহকরা নূন্যতম ১০০০ টাকা থেকে বিনিয়োগ শুরু করতে পারেন। তবে সর্বোচ্চ বিনিয়োগের ক্ষেত্রে কোনো সীমা নেই। এই স্কিমে গ্রাহকদের ১০০ টাকার গুণিতকে বিনিয়োগ করতে হবে।

সুবিধা: এই স্কিমে গ্রাহকরা জয়েন্ট অ্যাকাউন্ট খুলতে পারবেন।

➠ নমিনির সুবিধা মিলবে।

➠ ১০ বছরের বেশি বয়সী শিশুরা এই স্কিমে অ্যাকাউন্ট খুলতে পারবেন।

জেনে নিন, কীভাবে এই স্কিমে টাকা দ্বিগুণ করবেন?

পোস্ট অফিসের এই স্কিমে টাকা দ্বিগুণ হতে ১১৫ মাস অর্থাৎ ৯ বছর ৭ মাস সময় লাগবে অর্থাৎ কোনো ব্যক্তি ১১৫ মাস মেয়াদে কিষাণ বিকাশ পত্র স্কিমে ১ লাখ টাকা বিনিয়োগ করলে মেয়াদপূর্তিতে রিটার্ন পাবেন ২ লাখ টাকা। একই ভাবে ২ লাখ টাকা বিনিয়োগে মেয়াদপূর্তিতে মিলবে ৪ লাখ টাকা। অন্যদিকে ৫ লাখ টাকা বিনিয়োগে মিলবে ১০ লাখ টাকা।

post office
post office

পোস্ট অফিসের ওয়েবসাইট থেকে প্রাপ্ত তথ্যানুসারে, কিষাণ বিকাশ পত্র স্কিমে চক্রবৃদ্ধি হারে সুদ পাওয়া যায় অর্থাৎ সুদের উপর সুদ পেয়ে যান গ্রাহকরা। উল্লেখ্য, পূর্বে কিষাণ বিকাশ পত্র স্কিমে টাকা দ্বিগুণ ১২৩ মাস সময় লাগত। ২০২৩-এর জানুয়ারি মাসে সেই মেয়াদ কমিয়ে ১২০ মাস করা হয় এবং কয়েক মাস পর বিনিয়োগকারীদের সুবিধার্থে সেই মেয়াদ ১১৫ মাস করে দেওয়া হয় সরকারের তরফে।

আরও পড়ুন: Dev Election Campaign: প্রচারে নেমে করছেন জনসংযোগও; পা ছুঁয়ে প্রণাম তৃণমূল প্রার্থী দেবের! ভাইরাল ভিডিও

Leave a Comment