লেটেস্ট খবরবিনোদনভাইরাললাইফ স্টাইলরেসিপি

Post Office Scheme: পোস্ট অফিসের নতুন স্কিমে প্রতি মাসে মিলবে ২০,৫০০ টাকা! জানুন কীভাবে?

Published on:

WhatsApp Group Join Now

Post Office Scheme: প্রতি মাসে যদি নিজের জমানো টাকা পাওয়া যায় তার থেকে আর ভালো কি বা হতে পারে? সেই কথা ভেবেই নতুন স্কিম নিয়ে এলো পোস্ট অফিস। সিনিয়র সিটিজেন সেভিংস স্কিমে (Post Office Scheme) পুরো পাঁচ বছর প্রতি মাসে ২০,৫০০ টাকা মিলবে। সংসার খরচ নিয়ে আর টেনশন করতে হবে না। তবে এই স্কিম শুধুমাত্র প্রবীণ নাগরিকদের জন্য।

পোস্ট অফিস সিনিয়র সিটিজেন সেভিংস স্কিম:

৬০ বছর বা তার বেশি বয়সী ব্যক্তিদের কথা মাথায় রেখে এই স্কিম তৈরি করেছে পোস্ট অফিস, যাতে প্রবীণ নাগরিকরা অবসর গ্রহণের পর নিয়মিত আয় থেকে বঞ্চিত না হন। যাঁরা ভিআরএস নিয়েছেন, তাঁরাও এই স্কিমে বিনিয়োগ করতে পারেন। বর্তমানে সিনিয়র সিটিজেন সেভিংস স্কিমে ৮.২ শতাংশ হারে সুদ দিচ্ছে সরকার।

সিনিয়র সিটিজেন সেভিংস স্কিমে যদি একসঙ্গে ১৫ লাখ টাকা বিনিয়োগ করা হয়, তবে প্রতি ত্রৈমাসিকে হাতে আসবে ১০,২৫০ টাকা। শুধু সুদ থেকে আয় হবে ২ লাখ। সর্বোচ্চ ৩০ লাখ টাকা বিনিয়োগ করলে প্রতি বছর সুদ হিসেবে ২,৪৬,০০০ হাজার টাকা পাবেন বিনিয়োগকারী। তার মানে প্রতি মাসে ২০,৫০০ টাকা এবং প্রতি ত্রৈমাসিকে ৬১,৫০০ টাকা হাতে আসবে।

করছাড় পাওয়া যায়: পোস্ট অফিসের সিনিয়র সিটিজেন সেভিংস স্কিমে ন্যূনতম ১০০০ টাকা দিয়ে বিনিয়োগ শুরু করা যায়। সর্বোচ্চ বিনিয়োগের পরিমাণ ৩০ লাখ টাকা। প্রতি মাসে প্রাপ্ত অর্থ বা সুদ বিনিয়োগের পরিমাণের উপর নির্ভর করে। পাশাপাশি বিনিয়োগ থেকে ধারা ৮০সি-র অধীনে করছাড়ও পাওয়া যায়। সিনিয়র সিটিজেন সেভিংস স্কিমের হিসাব: একসঙ্গে জমা টাকার পরিমাণ: ৩০ লক্ষ টাকা।

এক্ষেত্রে কিছু নিয়মাবলী আছে, যেমন :

সময়কাল: ৫ বছর-সুদের হার:৮.২ শতাংশ
মেয়াদপূর্তিতে প্রাপ্ত অর্থ: ৪২,৩০,০০০ টাকা
সুদের আয়: ১২,৩০,০০০ টাকা
ত্রৈমাসিক আয়: ৬১,৫০০ টাকা
মাসিক আয়: ২০,৫০০ টাকা
বার্ষিক সুদ – ২,৪৬,০০০

আরও পড়ুন: লোক ঠকানোর দিন শেষ! এইবার যে কোনো জমি কেনার আগেই জানতে পারবেন তার দাম! স্পেশাল অ্যাপ চালু সরকারের

সিনিয়র সিটিজেন সেভিংস স্কিমের (Post Office Scheme)সুবিধা:

এই সঞ্চয় প্রকল্প পরিচালনা করে ভারত সরকার। ফলে টাকা নিরাপদে থাকবে। মিলবে গ্যারান্টিযুক্ত রিটার্ন। এতে আয়কর আইনের ধারা ৮০সি-এর আওতায় বিনিয়োগকারী প্রতি বছর ১.৫ লাখ টাকা পর্যন্ত করছাড় পেতে পারেন। প্রতি তিন মাস অন্তর সুদের টাকা পাওয়া যায়। প্রতি বছর এপ্রিল, জুলাই, অক্টোবর এবং জানুয়ারি মাসের প্রথম দিনে অ্যাকাউন্টে সুদ জমা হয়।

About Author
Neha Basu

বিগত প্রায় ২ বছর ডিজিটাল মিডিয়ার কাজের সঙ্গে যুক্ত। যে কোনো ধরনের জেনারেল নিউজ লেখায় পারদর্শী।